0
52

সোহেল আহমদ : জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে ও বাংলাদেশ এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে জাতিসংঘের চুড়ান্ত সুপারিশ প্রাপ্তিতে আনন্দ উদযাপনwidth="300" আয়োজন করেছে মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ। রোববার ৭মার্চ বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে মৌলভীবাজার মডেল থানা প্রাঙ্গণে এ আনন্দ আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে পাঠানো নির্দেশনার আলোকে দেশব্যাপী আয়োজনের অংশ হিসেবে মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ এ কর্মসূচির আয়োজন করে। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া এর সভাপতিত্বে ও সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) পরিমল চন্দ্র দেব’র প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমেদ এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, মৌলভীবাজার-হবিগঞ্জ সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন এমপি,জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান , পৌরভার মেয়র ফজলুর রহমান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, পিবিআই মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আবু ইউসুফ,মৌলভীবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো: ফজলুল আলী, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মো: আজমল হোসেন ও সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালিক তরফদার ভিপি সুয়েব। সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি ইয়াছিনুল হক’র স্বাগত বক্তব্যের মধ্যদিয়ে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ছাড়াও সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান,মেম্বার,পৌর কাউন্সিলরসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য নেছার আহমেদ এমপি বলেন, আমরা চাই এই দেশ একটি উন্নত ডিজিটাল সোনার বাংলাদেশ হবে। সেই পথেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, আমরা সবাই সাধারণ মানুষ কিংবা জনপ্রতিনিধি, কিন্তু আমাদের মূল পরিচয় আমরা বাঙালী। আমাদের মুখে মনে কাজে এক থাকতে হবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন এমপি বলেন, ৭১ সালের ৭ মার্চ রেডিওতে কান পেতে অপেক্ষা করছিলাম বঙ্গবন্ধুর ৭মার্চের ভাষন শুনার জন্য, প্রকৃত পক্ষে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষনই ছিল মহান মুক্তিযুদ্ধের ঘোষণা। এই ভাষনই মানুষকে যুদ্ধ শিখিয়েছিল। এসময় তিনি জাতির জনকের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।