গুজব সৃষ্টিকারীদের ধরতে মাঠে নেমেছি : পুলিশ সুপার ফারুক

বাংলার দিন ডেস্ক:লবণের দাম বেড়েছে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়ছে মৌলভীবাজার জেলায়। প্রতি কেজি লবণের দাম ১০০-১২০ টাকা হয়ে গেছে, এমন গুজব ছড়াচ্ছে একটি অসাধু চক্র।আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী বলছে, এ ধরনের গুজব কেউ ছড়ালে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মৌলভীবাজার জেলার পুলিশ সুপার মোঃ ফারুক আহমেদ পিপিএম (বার)  বলেন, গুজব সৃষ্টিকারীদের ধরতে আমরা মাঠে নেমেছি। বিভিন্ন হাট-বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আমরা কথা বলে তাদের জানিয়ে দিয়েছি, লবণের দাম বাড়েনি, কেউ লবণের দাম নিয়ে কারসাজি যাতে না করেন। এরপরও কোন ব্যবসায়ী গুজবে কান দিয়ে কারসাজি করলে কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

এমন গুজবে বিভ্রান্ত হয়ে বেশি মুনাফার লোভে কয়েকটি বাজারে লবণ বিক্রি করা বন্ধ করে দিয়েছে এক শ্রেণির ব্যবসায়ী। এতে সাধারণ মানুষের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিচ্ছে। লবণের দাম বেড়ে যাচ্ছে, এমন গুজবে সাধারণ মানুষ লবণ কিনতে ভিড় করছেন বিভিন্ন দোকানে।

কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, শুনেছি লবণের দাম বেড়ে প্রতি কেজি ১০০ থেকে ১২০ টাকায় দাঁড়িয়েছে। এমন খবরে আমরা লবণ বিক্রি আপাতত বন্ধ রেখেছি। কোথা থেকে এমন খবর পেয়েছেন, এর জবাবে তারা শুনেছেন বলে জানান।

অনেকেই বলছেন, এটা একটা নিছকই গুজব। বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে কেউ এ ধরনের গুজব ছড়াতে পারে।

পৌরসভার মেয়র মো: ফজলুর রহমান  বলেন এব্যাপারে শহরে মাইকিং করা হচ্ছে।  সরকার বিরোধী একটি কুচক্রী মহল দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডকে আড়াল করতে গুজব ছড়িয়ে সাধারণ মানুষকে বিক্ষুব্ধ করতে চাচ্ছে। দেশের শান্তিপূর্ণ পরিস্থিতিকে অশান্ত করে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের জন্য এসব মিথ্যা বানোয়াট অপপ্রচারের আশ্রয় নিয়েছে একটি রাজনৈতিক মহল।