মৌলভীবাজারে আওয়ামীলীগের সম্মেলন দু”গুপের সংঘর্ষের আশংকায় কমিটি ঘোষণা স্হগিত,

মাহমুদুর রহমান মাহমুদঃ মৌলভীবাজার সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, হলের চেয়ার ও জানালা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার সকালে সম্মেলন শুরু হওয়ার পূর্বে পৌর জনমিলন কেন্দ্রে এই ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এঘটনার জন্য ছাত্রলীগকে অভিযুক্ত করেছেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ। সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শেষ হবার পর দ্বিতীয় অধিবেশনে কাউন্সিলরগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ বা সমঝোতা না হওয়ায় কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ ও আহমদ হোসেন কাউন্সিল স্থগিত ঘোষনা করেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা মনে করি, সম্মেলন যাতে সুন্দর ও সফল ভাবে সম্পন্ন হয় তার জন্য মৌলভীবাজারের সব নেতারা চেষ্টা চালাবেন, আজ ছাত্রলীগ যে কাজ করেছেন তা জগন্নতম কাজ, তারা আমাদের অসম্মান করেছে। আমরাও ছাত্র রাজনীতি করেছি অনেক নির্যাতন জেল জুলুম সজ্য করে আজকে এখানে এসেছি।

এখানে যারা বসা আছেন, তারা সবাই জুলুম নির্যাতন করে এখানে এসেছেন। তিনি দুই নেতার নাম বলে বলেন, আমরা মনে করি এখানে দুইজনই নেতৃত্বে আছেন, তাদের মূল দায়িত্ব এই সম্মেলন যাতে সুন্দর ও সফলভাবে সম্পূন্ন হয়, আমরা চাই সুন্দর সফলভাবে নতুন নেতৃত্ব আসবে।

মিছবাহ বলেন, আমরা তৃতীয় প্রজন্মের হাতে ক্ষমতা তুলে দিতে চাই, আমরা নতুন নেতৃত্ব দিতে চাই, দ্বিতীয় প্রজন্মের হাতে বর্তমান রাজনীতি আছে, আমরা চাই তৃতীয় প্রজন্ম উন্নত বাংলাদেশ গঠন করবে। দুপুরে সম্মেলন অধিবেশন শুরু হয়, এতে সভাপত্বি করেন বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কামাল আহমদ,

সম্মেলনের উদ্বোন করেন মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আহমদ হোসেন, বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সর্বজন শ্রদ্ধেয় বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ, কেন্দ্রীয় সদস্য রফিকুর রহমান ও প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান।