পর্যায়ক্রমে ঢাকার প্রতিটি আবাসিক এলাকাকে হর্নমুক্ত করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী

বাংলার দিন ডেস্ক:পর্যায়ক্রমে ঢাকার প্রতিটি আবাসিক এলাকাকেই হর্নমুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন।মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর পল্টনে সচিবালয়ের সামনে ‘সচিবালয়ের চারপাশের এলাকা হর্নমুক্ত’ ঘোষণা অনুষ্ঠানে মন্ত্রী একথা জানান।মো. শাহাব উদ্দিন বলেন, সচিবালয় এলাকা হর্নমুক্ত ঘোষণার মাধ্যমে ঢাকার আরেকটি এলাকা পরিবেশবান্ধব এলাকায় পরিণত হতে যাচ্ছে। পর্যায়ক্রমে ঢাকার সব আবাসিক এলাকাকেই হর্নমুক্ত এলাকা হিসেবে ঘোষণার প্রস্তুতি নিচ্ছি।ঢাকার মতো বড় শহরে এই ধরনের কার্যক্রম শুধু সরকারি আদেশ-নির্দেশের মাধ্যমে বাস্তবায়ন সম্ভব নয় উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, এর জন্য সবার সহযোগিতা দরকার। কারণ এই শহর আমাদের সবার। শহরের পরিবেশ সুন্দর রাখতে নিজের জায়গা থেকে কাজ করতে হবে।এই দফায় পল্টন মোড়, সচিবালয় লিংক রোড হয়ে গুলিস্তানের জিরো পয়েন্ট এলাকাকে হর্নমুক্ত এলাকা হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে।মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, এ কার্যক্রম বাস্তবায়নে মঙ্গলবার উদ্বোধনের পাশাপাশি চালকদের সচেতনতা বাড়ানোর কাজ চলবে।

 

বুধবার থেকে সচিবালয়ের আশেপাশে হর্ন বাজালে জরিমানা করা হবে।মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শব্দদূষণ (নিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা-২০০৬ ধারা অনুযায়ী নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ করে আবাসিক এলাকায় চলাচলকালে যানবাহনে হর্ন বাজানো দণ্ডনীয় অপরাধ। এই অপরাধের জন্য প্রথমবার অনধিক ১ (এক) মাস কারাদণ্ডে বা অনধিক ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয় দণ্ডের বিধান আছে। আর কেউ যদি পরবর্তী সময়ে একই অপরাধ করেন সেক্ষেত্রে অনধিক ৬ (ছয়) মাস কারাদণ্ড বা অনধিক ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবে।