মৌলভীবাজারে স্থানীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টারঃ২০ ডিসেম্বর, মৌলভীবাজারের স্থানীয় শহীদ দিবস।  এদিকে শহীদ দিবস উপলক্ষে মৌলভীবাজার পাবলিক লাইব্রেরীর হলরুমে বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ কানু স্মৃতি পরিষদের আয়োজনে ২০ ডিসেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যায় কবিতা পাঠ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।সভায় পরিষদের সভাপতি এডভোকেট কিশোরী পদ দেব শ্যামল এর সভাপতিত্বে ও কবি পুলক দেব এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট লেখক ও কলামিস্ট মুক্তিযোদ্ধা এড. মুজিবুর রহমান মুজিব, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,  জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, ও জেলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি , সিনিয়র সাংবাদিক, বিশিষ্ট সমাজ সংগঠক বকসি ইকবাল আহমেদ, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক এড.  রমাকান্ত দাশ গুপ্ত। এছাড়ায় সভায় সাংবাদিক, আইনজীবী সহ নানা শ্রেনীপেশার নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

 

জানা যায়,১৯৭১ সালে স্বাধীনতা অর্জনের মাত্র চারদিন পর ২০ ডিসেম্বর পাকবাহিনীর ফেলে যাওয়া মাইন বিস্ফোরণে মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ২৪ জন মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন। এরপর থেকে মৌলভীবাজারে এই দিনটিকে স্থানীয় শহীদ দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

মুক্তিযোদ্ধারা জানান, ১৯৭১ সালের ২০ ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধারা মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্মিত মুক্তিযোদ্ধা বাড়ীতে ফেরার উদ্দেশ্যে জড়ো হতে থাকেন। এর আগে শহরের বিভিন্ন জায়গায় মাটিতে পুঁতে রাখা মাইনগুলো উদ্ধার করে রাখা হয়েছিল এই ক্যাম্পের একটি কক্ষে।

বিজয় উল্লাস আর বাড়ি ফেরার আনন্দে মুক্তিযোদ্ধারা যখন উৎসব পালনে ব্যস্ত তখন হঠাৎ উদ্ধারকৃত মাইন বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে এই এলাকা। মুহূর্তের মধ্যে ২৪ জন মুক্তিযোদ্ধার ছিন্নভিন্ন দেহ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে মরদেহগুলো একত্রিত করে বিদ্যালয় মাঠের এক পাশে সমাহিত করা হয়। বর্তমানে সেখানে ২৪ জন শহীদ মুক্তিযোদ্ধার নাম সম্বলিত স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হয়েছে।


এরপর থেকে দিনটিকে স্থানীয় শহীদ দিবস হিসেবে পালন করে আসছেন মৌলভীবাজারবাসী। দিবসটি উপলক্ষে প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন নানা কর্মসূচি পালন করেছে।