কুলাউড়ায় শিরনী নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ২ নারীসহ আহত ৬

কুলাউড়া প্রতিনিধিঃ কুলাউড়ায় মসজিদের শিরনী বিতরণে কথা কাটাকাটির ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ২ নারীসহ ৬জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার ৬ মার্চ জুম্মার নামাজের পর উপজেলার রাউৎগাঁও ইউনিয়নের কৌলা গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাউৎগাঁও ইউনিয়নের কৌলা এলাকার নজাতপুর এলাকার মসজিদের পাশের মাঠে শিরনী বিতরণকালে ওই এলাকার ক্বাজী আজির উদ্দিনের ছোট ভাই জসিম উদ্দিন মধ্য কৌলা গ্রামের বাসিন্দা ফুল মিয়ার ছেলে পায়েল মিয়া (১৪) কে লাইনে দাঁড়াতে বলে।একপর্যায়ে জসিম ধাক্কা দিয়ে পায়েলকে লাইনে বসায়। বিষয়টি পায়েল তার বাবাকে জানায়। এরপর ফুল মিয়া বিষয়টি জসিমের কাছে জানতে চাইলে জসিম ফুল মিয়ার সাথে তর্কে জড়ায় এবং একপর্যায়ে তাকে মারধর করে। পরে আজির উদ্দিনের পরিবারের লোকজন ফুল মিয়ার পরিবারের লোকজনকে ধাওয়া করে। এ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে গুরুতর আহত হন- ফুল মিয়া, তাঁর স্ত্রী আয়জুন বেগম, ছেলে পায়েল মিয়া, মেয়ে সিমলা বেগম ও চাচাতো ভাই আজাদ মিয়া। অপরদিকে আজির উদ্দিনের চাচাতো ভাই সুহেল মিয়াও আহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করেন।রাউৎগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল জামাল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শিরনী বিতরণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষ হওয়ার খবর পেয়েছি। বিষয়টি প্রশাসনকে অবহিত করেছি।

কুলাউড়া থানার ওসি মোঃ ইয়ারদৌস হাসান জানান, শিরনী নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষের খবর শুনেছি। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।