কুলাউড়ায় দুই প্রবাসী বরকে জরিমানা

কুলাউড়া প্রতিনিধিঃমৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় বিয়ের পিড়িতে বসা ও বিয়ের আয়োজন করায় দুই প্রবাসী বরকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে প্রশাসন। বৃহস্পতিবার দুপুরে করোনা প্রতিরোধে সচেতনামূলক অভিযানের অংশ হিসেবে তাদের এই জরিমানা করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এটিএম ফরহাদ চৌধুরী।

তিনি জানান, উপজেলার ব্রাক্ষণবাজার ইউপির চকেরগ্রাম ও কাদিপুর ইউপির ছকাপন এলাকায় দুইজন সদ্য ওমান থেকে দেশে ফিরেছেন। সরকারি আদেশ অনুযায়ী ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা। কিন্তু তা না করে ছকাপন এলাকার রিয়াজ উদ্দিন বর সেজে বিয়ের পিড়িতে বসায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অপরজন চকেরগ্রাম এলাকার জিয়াউর রহমান কোয়ারেন্টাইনে না থেকে নিজের বাড়িতে বিয়ের আয়োজন (আকদ) অনুষ্ঠান করেন। তাই জনগনকে সচেতন করতে তাদের জরিমানা করা হয়েছে। এদিকে কুলাউড়া উপজেলায় এপর্যন্ত ৩৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তারা সকলেই বিদেশ ফেরত। এসময় উপস্থিত ছিলেন, কুলাউড়া স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা ডা. নুরুল হক, কুলাউড়া থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান, ওসি তদন্ত সঞ্জয় চক্রবর্তী প্রমুখ।
কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এটিএম ফরহাদ চৌধুরী জরিমানার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা মানুষকে সচেতন করতে কাজ করছি। যারা প্রবাস থেকে দেশে ফিরবে তারা ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন আইন মেনে চলতে হবে। ভাইরাসের সংক্রমন যতদিন কমছে না ততদিন এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।
ছবিক্যাপশন- কুলাউড়ায় প্রবাস ফেরত এক যুবক কোয়ারেন্টাইন আইন না মেনে বিয়ে করতে গেলে ভ্রাম্য অভিযান পরিচালনা করে বরকে জরিমানা করা হয়।