বেকার দলকে প্রাণে মারবেন না 

শিক্ষিত বেকার দলকে প্রাণে মারবেন না 

 

 

মোঃ আব্দুল কালামঃকিছু কষ্ট চাপা থাকে কিছু যন্ত্রণা গভীর থেকে গভীরে চলে যায়, যাদের যায় তারা শিক্ষিত বেকার দলের মধ্যে পড়ে।দেশে আজ শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে। শিক্ষিত বেকার দলকে নিয়ে কোনো মাথা ব্যাথা নেই। দেশে আজ পর্যাপ্ত কর্মসংস্থানের অভাব। মানুষের মাঝে কিছু শিক্ষিত মানুষ আছে যারা চাপা কষ্ট নিয়ে কান্না করে বলে আমার দলের তো ক্ষমতা নেই ক্ষমতায় যেতেও পারবো না দলটা বড় নড়বড়ে। এই দলের বল নেই মাঠ নেই তবু খেলে জিততে চায় জেতার আনন্দ তার কাছে অনেক বড় সেই আনন্দের স্বাদ নিতে চায় কিন্তু বার বার ব্যর্থ হয় তাদের দলটা নিয়ে কি কারো মাথা ব্যাথা আছে? দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে বেগবান করতে হলে আজকে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাড়িয়েছে বেকার সমস্যা দূরিকরণ। কিন্তু কে শুনে কার কথা। বেকাররা আজ ধুমড়ে মুছড়ে যাচ্ছে নিরবে নয়নের জল ভালের পাশে স্রোতস্বিনী হয়ে পড়েছে কেউ দেখেও না দেখার ভান করছে তবুও চলছে তাদের আশার স্বপ্নবোনা। সম্প্রতি কোভিড ১৯ করোনা ভাইরাসের কারণে শিক্ষিত বেকারদের অবস্থা আরো নাজেহাল হয়ে পড়েছে। আমাদের দেশের অধিকাংশ শিক্ষিত বেকাররা আজ যোগ্যতা অনুসারে কাজ পাচ্ছে না তারা আজ হতাশ। বেকারদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য কতটুকু চেষ্টা করা হচ্ছে আজ সময় এসেছে ভেবে দেখার। বাড়ছে বেকারত্ব বাড়ছে জনসংখ্যা বাড়ছে দারিদ্রতা। করোনা ভাইরাসের প্রভাবে যতটা না জনজীবনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে তার চেয়ে কম প্রভাব পড়েনি শিক্ষিত বেকার দলের উপর। অনেকের চাকরির ৩০ বছর বয়স পেরিয়ে যাচ্ছে আজ কিন্তু এখন তারা হতাশ। তাদের চিন্তা ধারণা কবে আমরা করোনার মহামারি থেকে মুক্ত হবো। চাকরির বাজারে যুদ্ধ করবো বেঁচে থাকার সংগ্রাম করবো। করোনার আতংকের চেয়ে শিক্ষিত বেকার দলের আতংক এখন অনেক বড় হয়ে দেখা দিয়েছে যে চাকরির আবেদনের বয়স শেষের পথে। হতাশা তাদের পিছু ছাড়ছে না। সরকারের উচিত হবে চাকরির আবেদনের ক্ষেত্রে বয়স বৃদ্ধির বিষয়টা ভেবে দেখার তা নাহলে বেকার দলের ভবিষৎ অন্ধকারে নিমজ্জিত হবে। দেশের সাম্প্রতিক সময়ে যে সকল চাকরির নিয়োগ পরিক্ষা হয় তা দীর্ঘ সময়সাপেক্ষ ও ব্যয়বহুল হওয়ায় সমন্বিত নিয়োগ প্রক্রিয়া চালু হলে বেকার দলের দুরাবস্থা লাগবে অনেকটাই ফলপ্রসু হবে। বেকারদের কথা মাথায় নিয়ে অচিরেই চাকরিতে আবেদনের বয়স বৃদ্ধির বিষয়টি নজরে আনার উদাত্ত আহবান জানাই সরকারের নিকট। দয়া করে বেকারদের প্রানে মারবেন না তাদেরকে বাঁচান।

 

 

সংবাদকর্মী

মোঃ আব্দুল কালাম